স্ত্রীর সঙ্গে বন্ধুর পরকীয়া, যুবকের করুণ পরিণতি।

102

সুভাষ বিশ্বাস ও বিভাস বিশ্বাস। নামের মিলের মতো দু’জনের মধ্যে মনের মিলও ছিল। ফলে বিভাস বিশ্বাসের বাড়িতে আসা যাওয়া ছিল সুভাষ বিশ্বাসের। আর এরই সূত্র ধরে বিভাসের স্ত্রীর সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক গড়ে তোলেন তিনি। আর এই সম্পর্কের কারণে শেষ পর্যন্ত বন্ধুর হাতে প্রাণ দিতে হলো তাকে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের নদিয়ার পলাশিপাড়ায়।

ভারতীয় গণমাধ্যমে খবর, বেশ কিছুদিন ধরে স্ত্রীর সঙ্গে সুভাষের অবৈধ সম্পর্ক তৈরি হলেও এতোদিন সেটা আঁচ করতে পারেননি বিভাস। কিন্তু সম্প্রতি স্ত্রীর সঙ্গে বন্ধুর সম্পর্ক নিয়ে সন্দেহ করতে শুরু করেন বিভাস। অভিযোগ, এই বিষয় নিয়ে দু’জনের মধ্যে মাঝেমধ্যেই কথাকাটাকাটি ও মারামারিও ঘটনা ঘটে।

রবিবার সকালে সুভাষ একটি চায়ের দোকানে বসেছিলেন, তখন হঠাৎই সেখানে এসে হাজির হয় বিভাস। এরপর খুব কাছ থেকে সুভাষকে লক্ষ্য করে গুলি করে পালিয়ে যায়।

রক্তাক্ত অবস্থায় সুভাষকে পলাশিপাড়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পলাশিপাড়া থানার পুলিশ। অভিযুক্ত বিভাস বিশ্বাসকে গ্রেফতারে অভিযানে নেমেছে পুলিশ।

Leave A Reply

Your email address will not be published.