সঙ্গী মিথ্যাবাদী কথা বললে, ক্ষমা করবেন নাকি ভুলে যাবেন?

ভালোবাসার মূল ভিত্তিই হলো বিশ্বাস। এর জেরেই একটি সম্পর্ক পূর্ণতা পায়। ভালোবাসার মানুষকে আমরা অন্ধের মতো বিশ্বাস করি। কেউ কেউ এই বিশ্বাসের মানটা রাখেন। অনেকেই আবার প্রতারণাও করেন। আমরা যদি কোনমতেই ধরতে পারি ভালোবাসার মানুষটি মিথ্যা বলছে, তাহলে অনেক মানসিক আঘাত পাই। তখন বিশ্বাসের পাশাপাশি আমাদের মনটাও ভেঙে চূর্ণ-বিচূর্ণ হয়ে যায়। এটাই বাস্তবতা। এ রকম পরিস্থিতি কম-বেশি আমাদের সবাইকেই মোকাবেলা করতে হয়। তখন মিথ্যাসঙ্গী সঙ্গীকে ক্ষমা করে সম্পর্কটাকে সামনের দিকে এগিয়ে নেবেন নাকি তাকে একেবারেই ভুলে যাবেন এ সিদ্ধান্ত কেবল আপনার।এক্ষেত্রে মিথ্যাবাদী সঙ্গীকে ইতিবাচকভাবে মোকাবেলা করার কিছু উপায় জানিয়ে দিচ্ছে ‘টাইমস অব ইন্ডিয়া’-

নিজেকে প্রস্তুত করুনঃ- বিষয়টি নিয়ে তার মুখোমুখি কথা বলার ব্যাপারে নিজেকে প্রস্তুত করুন। ঝগড়া নয়, বরং আপনার ভালোবাসার মানুষ আপনাকে কেন মিথ্যা বলেছে সে বিষয়টি ফোকাস করার চেষ্টা করুন। তাকে বোঝান সে মিথ্যা বলায় আপনাদের সম্পর্কে এর কতটা প্রভাব পড়েছে। সঙ্গীকে বিষয়টি আপনার সঙ্গে শেয়ার করতে উৎসাহিত করুন। নতুবা সমস্যার সমাধান সম্ভব নয়। ধৈর্য্য ধরে তার কথা শুনুন। তবেই সমস্যার সমাধান সম্ভব।

সরাসরি কথা বলুনঃ- যদিও ভালোবাসার মানুষকে মিথ্যা বলার ব্যাপারে প্রশ্ন করা কঠিন, তারপরও এই পথই বেছে নিন। কোনো ভনিতা না করে সরাসরি তার সঙ্গে কথা বলুন। আপনার মনে যা প্রশ্ন উঠেছে তাকে এ ব্যাপারে জানান। মনে রাখবেন, আপনি মনে মনে প্রশ্নগুলোর যেসব উত্তর আশা করেছেন তেমনটা নাও হতে পারে। সেক্ষেত্রে কঠিন উত্তর শোনার ব্যাপারে নিজেকে আগে থেকেই প্রস্তুত রাখুন।

ছোট করবেন নাঃ- সম্পর্ক ঠিক রাখতে ক্ষতিকর নয় এমন মিথ্যা অনেকেই বলে থাকেন। তবে এর জেরে সঙ্গীকে কখনই ছোট করবেন না। এতে সম্পর্কে বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে।

সতর্কভাবে শুনুনঃ- মিথ্যার ব্যাপারটি নিয়ে আপনি যেমন আপনার প্রশ্নগুলো স্পষ্টভাবে বলেছেন, তেমনি সঙ্গীকেও তার দিকটা ব্যাখ্যা করার সুযোগ দিন। এক্ষেত্রে তার কথা ভালোভাবে শুনুনন এবং বোঝার চেষ্টা করুন কেন সে আপনাকে মিথ্যা বলেছে। আপনার একমাত্র উদ্দেশ্যই হবে মিথ্যার কারণ খুঁজে বের করা, যাতে ভবিষ্যতে সহজেই এটি এড়িয়ে চলা যায়।

নিজের ওপর ভরসা রাখুনঃ- অনেকেই আছেন যারা বিষয়টি কৌশলে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। এক্ষেত্রে মনোবল হারাবেন না। সাহস করে তাকে এ ব্যাপারে বার বার বললে দেখবেন একসময় সে নিজেই এর ব্যাখ্যা দেবে। তাতে যদি সন্তুষ্টি না আসে তাহলে এই বিষয়টাকে সম্পর্কে আপনি সতর্কবার্তা হিসেবে দেখতে পারেন।

ক্ষমা করবেন নাকি ভুলে যাবেন? মিথ্যাবাদী সঙ্গীর মুখোমুখি হয়ে তার সব কথা শোনার পর সিদ্ধান্ত নিন- তাকে ক্ষমা করবেন নাকি ভুলে যাবেন? যদি এর উত্তর না হয় তাহলে সম্পর্কটাকে আর এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার কোনো মানেই হয়না। আর যদি ভালোবাসার মানুষকে ক্ষমা করতে পারেন তাহলে ভবিষ্যতে তাকে মিথ্যা বলা থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দিন।

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Call Now
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

১৮ প্লাস

Call Now