যৌন হয়রানির দায়ে অভিযুক্ত বলিউড তারকারা।

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে মুম্বায়ের থানায় অভিযোগ জানিয়েছেন তনুশ্রী দত্ত। ২০০৮ সালে ‘হর্ন ওকে প্লিজ’ ছবির শ্যুটিংয়ের সময় নানা তাকে যৌন হয়রানি করেছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। তবে পুরো বিষয়টি অস্বীকার করে তনুশ্রীকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন নানা। বলিউডে যৌন হয়রানির ঘটনাই এটাই নতুন নয়। এর আগেও এসব অভিযোগ উঠেছে এবং অধিকাংশ ক্ষেত্রে অভিযুক্তকে রেহাই দেয়া হয়েছে।

চেতন ভগত: নানা পাটেকর কাণ্ডের পর বলিউডের স্বনামধন্য চিত্রনাট্যকার ও লেখক চেতন ভগতের বিরুদ্ধেও যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। সেটা স্বীকার করে নিয়ে লম্বা বিবৃতিও দিয়েছেন চেতন ভগত। এ জন্য সংশ্লিষ্ট নারী ও স্ত্রীর কাছে তিনি ক্ষমা চেয়েছেন বলেও জানিয়েছেন।

রজত কাপুর: সম্প্রতি এক সাংবাদিকসহ দুই নারী বলিউড অভিনেতা রজত কাপুরের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছেন। এ জন্য গত রবিবার টুইটা ক্ষমাও চেয়েছেন রজত কাপুর।

অলোক নাথ: অস্কার জয়ী ছবি ‘গান্ধী’র মাধ্যমে আশির দশকে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছিল অলোক নাথের। সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন এক নারী টিভি প্রযোজক। নব্বইয়ের দশকের একটি টিভি শোতে অলোক নাথের সঙ্গে কাজ করেছিলেন তিনি।

পাপন: ২০১৮ সালের শুরুর দিকে এই গায়কের বিরুদ্ধে একটি রিয়্যালিটি শোয়ের নাবালিকা প্রতিযোগীকে জোর করে চুমু খাওয়ার অভিযোগ ওঠে। সেই সংক্রান্ত একটি ভিডিও ফুটেজও প্রকাশিত হয়েছিল। যদিও পাপন ক্ষমা চেয়ে নেন। স্নেহের বশেই নাকি এমন কাজ করেছিলেন পাপন, হেনস্থা নয় বলেন মেয়েটির বাবাও। আদালতে অভিযোগ দায়ের হলেও জামিনে মুক্তি পান পরবর্তীতে।

ওম পুরী: স্ত্রী নন্দিতা পুরী নির্যাতনের অভিযোগ আনেন ওমের বিরুদ্ধে। বাড়ির পরিচারিকাকেও যৌন হয়রানি করা হয়েছিল, এমনটাও অভিযোগ আনা হয় জনপ্রিয় অভিনেতার বিরুদ্ধে।

আদিত্য পাঞ্চোলি: অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন প্রাক্তন প্রেমিক আদিত্যর বিরুদ্ধে। আদিত্যর অপর গার্লফ্রেন্ড পূজা বেদীর পরিচারিকাকেও ধর্ষণ করেছিলেন আদিত্য, এমনটাও অভিযোগ আনা হয়েছিল। যদিও পরবর্তীতে জামিনে মুক্তি পান আদিত্য।

রাজেশ খান্না: লিভ-ইন পার্টনার অনিতা আদবাণী রাজেশের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ এনেছিলেন। অনিতা বলেন, তিনি সে সময় নাবালিকা ছিলেন, যখন রাজেশ তাকে হেনস্থা করেছিলেন।

মধুর ভাণ্ডারকর: ২০০৪ সালে প্রীতি জৈন নামে এক অভিনেত্রী ধর্ষণের অভিযোগ আনেন। কাস্টিং কাউচের কথাও বলেন প্রীতি।

বিকাশ বহেল: কঙ্গনা রানাউত অভিযোগের আঙুল তোলেন হিট ছবি ‘কুইন’-এর পরিচালক বহেলের দিকে। ‘ফ্যানটম ফিল্মস’-এর একজন ক্রিউ মেম্বারও বিকাশের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছেন। বিকাশ বহেল, মধু মান্টেনা, অনুরাগ কাশ্যপ এবং বিক্রমাদিত্য মাতওয়ানে শুরু করেছিলেন ‘ফ্যান্টম ফিল্মস’। অনুরাগ এই সংস্থা তুলে নেওয়ার কথা ঘোষণা দিয়েছেন।

করিম মোরানি: ‘রা ওয়ান’, ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ ছবির প্রযোজক করিমের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন দিল্লির এক শিক্ষার্থী। যদিও পরবর্তীতে আদালত তাকেও অব্যাহতি দিয়েছিল।

অঙ্কিত তিওয়ারি: ২০১৪ সালে এই গায়কের বিরুদ্ধে তার প্রেমিকা ধর্ষণের অভিযোগ আনেন। পরবর্তীতে মুম্বাই সেশন কোর্ট তাকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি দেয়।

সাইনি আহুজা: ২০০৯ সালে বাড়ির পরিচারিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল এই তারকার বিরুদ্ধে। জামিনে মুক্তি পান ‘গ্যাংস্টার’-‘ভুলভুলাইয়া’ তারকা। পরবর্তীতে অভিযোগ তুলে নেওয়া হয়।

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.