বড়দের জন্য ১৮+ এডাল্ট কবিতা পার্টঃ-৪

১। যখন দু’স্তন মেলে ডেকে নিলে বুকের ওপরে
স্বর্গের জঘন খুলে দেখালে যে দীপ্তির প্রকাশ
মুহুর্তেই ঘুচে গেল তৃষিতের অপেক্ষার ত্রাশ

২। বৃষ্টিও বৃষ্টি তো নয় – জরায়ুর রক্তিম ক্রন্দন, 
আজ তিনদিন থেকে অবিরাম, ক্ষান্তি নেই তার।
নিষেধ পতাকা লাল, পতাকায় শরীরী স্পন্দন,
তবুও তবুও জাগে, জাগে ইচ্ছা সেখানে যাবার।
শত বাধা সত্ত্বেও থামতে পারে না কামুক পুরুষ,
দুজনের দেহ ছিড়ে বের হয় দুধ-পূর্ণিমা,
আর তা নেমে আসে স্তনের চুড়ায়,
বাড়তে থাকে কামনার জ্বর।
আর জ্বরতপ্ত হাত কুড়ায় কামনার ফুল…

(বি.দ্র. প্রথম অংশে মেয়েদের পিরিয়ড এবং দ্বিতীয় অংশে শারীরিক সম্পর্কের ব্যাপারটি তুলে ধরা হয়েছে)

৩। যখন খুলছো তুমি দেহ থেকে শাড়ি ও শেমিজ,
তখন উদ্বেল কেউ হয়ে ওঠে কৃষি-প্রতিভায়…

(বি.দ্র. এখানে কৃষি প্রতিভা রূপকটি দ্বারা যৌনতাকে ইঙ্গিত করা হয়েছে)

৪। দেবী তুমি দাঁড়িয়ে রইলে,
আমি চুম্বনের ফুলে
সারাদেহ ঢেকে দিয়ে
পূজাপাঠ শুরু করলাম।
তুমি তো মাটি নও
ছুঁয়ে আমি দেখেছি আঙুলে,
তবুও মন্দিরে ঢুকে
প্রথমেই তোমাকে প্রণাম।

You might also like More from author

Leave A Reply

Your email address will not be published.